হেফাজত আমীর শায়খুল ইসলাম আল্লামা শাহ্ আহমদ শফী দা.বা. বলেন- ছহী দ্বীনি শিক্ষা ও চর্চার অভাবে সরলমনা মুসলমানদের মাঝে কতিপয় স্বার্থন্বেষী মহল নিজেদের আখের ঘুছাতে বিভক্তি সৃষ্টি করছে। শুধু তাই নয় তারা ইসলাম বিদ্বেষীদের এজেন্ডা বাস্তবায়নের জন্য ইসলামের লেবাস ধারন করে সুকৌশলে ছহী দ্বীনি শিক্ষা প্রদানেও প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করছে। তাদের এসব ষঢ়যন্ত্র হতে সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

গতকাল শনিবার, ৫ জানুয়ারি ২০১৯ সকাল ১১ঘটিকায় হাটহাজারী পশ্চিম মেখল কাজীপাড়ায় আল্লামা আহমদ শফী সেবা সংস্থার সহযোগিতায় সদ্য প্রতিষ্ঠত কাজীপাড়া তা’লীমুল কুরআন মাদরাসার ১ম ও নতুন শিক্ষাবর্ষের সবক প্রদান ও মাদরাসার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

 তিনি আরো বলেন- ঈমান-আক্বিদার খোঁড়া অজুহাত তুলে অসত্য ও ধাপ্পাবাজির মাধ্যমে স্বার্থান্বেষী মহলটি সাধারণ মুসলমানের মাঝে বিবাদ ও বিভক্তি ছাড়াচ্ছে। অথচ বাংলাদেশের প্রায় সকল মুসলমান আহলে সুন্নাত ওয়াল জামাতের অনুসারী। তারা নিজেদের কথিত সুন্নী দাবী করে অথচ রাসুল সা. সুন্নত পালনের দারে-কাছেও থাকে না; বরং নতুন নতুন কুপ্রথা চালু করে সরলমনা মুসলমানদের সাথে প্রতারণা করছে।

হক্কানী উলামায়ে কেরাম ও তাদের অনুসারীরা প্রিয় নবী মুহাম্মদ স. এর সুন্নত মুতাবেক জীবন যাপন করলেও মাজারপুজারী নামদারী আলেমরা কথিত ওহাবীর তকমা দিয়ে বিভ্রান্তি ছড়িয়ে পাড়ায় পাড়ায়, মহল্লায় মহাল্লায় বিভেদ ও বিভক্তি ছড়াচ্ছে। মানুষকে ছহী দ্বীনি শিক্ষা থেকে দুরে রাখছে, যাতে তাদের উদ্দেশ্য হাসিলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয়।
আহমদ শফী বলেন- আমাদের মাঝে সঠিক দ্বীনের চর্চার পরিধি বাড়াতে হবে। পাড়ায় পাড়ায় নুরানী মাদরাসা প্রতিষ্ঠা করতে হবে। তবেই আমাদের শিশুরা জীবনের শুরুতে দ্বীনের ছহী শিক্ষা পেয়ে জীবন আলোকিত হবে, সঠিক দ্বীনের অনুসারী হবে। কাজীপাড়া তালীমুল কুরআন মাদরাসার সুচানার মাধ্যমে অত্র অঞ্চলেও ছহী দ্বীনের আলো ছড়াবে, সর্বস্তরের নারী-পুরষ সঠিক দ্বীনের সন্ধান পাবে, ইনশআল্লাহ।

সবক প্রদান ও উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জামিয়া দারুল উলুম হাটহাজারীর সিনিয়র মুহাদ্দিস মাওলানা ওমর কাসেমী, নূরানী তালীমুল কুরআন বোর্ড এর সাংগঠনিক সচিব মাওলানা জমির উদ্দীন, মেখল মাদরাসার সিনিয়র উস্তাদ মাওলানা ইসমাইল খান, বিশিষ্ট দানবীর আলহাজ্ব রাজামিয়া কোম্পানী, মাওলানা ইবরাহীম খলিল সিকদার, মাওলানা মামুন, মাওলানা এরশাদ উল্লাহ সিকদার, মাওলানা কাজী শহিদুল্লাহ কায়সারসহ স্থানীয় আলেম –উলামা ও এলাকার গণ্যামান্য ব্যক্তিবর্গ।