যমযম ডেস্ক : তাবলীগের চলমান সংকট থেকে উত্তরণের পথ খুঁজতে আগামী সপ্তাহে তাবলীগের জিম্মাদার, প্রশাসন ও ওলামাদের একটি প্রতিনিধি দল দারুল উলুম দেওবন্দ যাচ্ছে। সবাই আশা করছে, এবার সকলে মিলেমিশে কাজ করার একটি পথ বের হবে। এই যখন অবস্থা, তখন সাদপন্থীদের এ দেশীয় অনুসারীরা দারুল উলুম দেওবন্দের বিরুদ্ধে প্রচারণায় লিপ্ত রয়েছে। যদিও তাদের কয়েকজন প্রতিনিধিদলের সঙ্গে দারুল উলুম দেওবন্দ যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

ফলে জনমনে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে, আদৌ কি তারা মীমাংসার জন্য দারুল উলুম দেওবন্দ যাচ্ছেন, নাকি সিদ্ধান্ত নিজেদের মতো হলে মানবেন, আর না হলে মানবেন না, এই নিয়তে যাচ্ছেন?

তাদের অনুসারীদের দেওবন্দ বিরোধী প্রচারণায় এ কথাই সহজে বুঝে আসে।
এজন্যই তারা তাবলীগের সাথীদের মধ্যে আগে থেকেই দেওবন্দ বিরোধী মনোভাব তৈরি করতে প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছে। তারা দীর্ঘদিন ধরেই কওমি মাদ্রাসা ও দারুল উলুম দেওবন্দের বিরুদ্ধে বিষোদগার করে থাকলেও সদ্য তাদের বিষোদগারের মাত্রাটা প্রচণ্ড বেড়েছে। তাদের পরিচালিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল, ফেসবুক ফ্যান পেজ, ফেসবুক আইডিতে তারা প্রতিদিনই করে যাচ্ছে এ জাতীয় অপকর্ম। সেজন্য ওলামা ও তাবলীগের জিম্মাদার ও রাহবরদের সতর্ক থাকতে হবে। তারা যেন ষড়যন্ত্রের নতুন কোনো বীজ বপন করতে না পারে, সবাইকে সচেতন থাকতে হবে। এমনটাই মনে করছেন তাবলীগের সাধারণ সাথীরা।