Category Archives: বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

সাইবার ক্রাইম থেকে বাঁচতে করণীয়

ক্রমেই ইন্টারনেট ব্যবহার বেড়েই চলেছে। অনেক কাজকর্ম ঘরে বসে অনলাইনে সেরে ফেলছি আমরা। কি নেই এখন অনলাইনে, সব জিনিস এখন ঘরে বসেই পাওয়া যাচ্ছে। বর্তমানে একটি উল্লেখযোগ্য বিষয় হলো সাইবার অপরাধ। অনলাইনে এসব কাজকর্ম করতে গিয়ে নানাভাবে নারী-পুরুষ অনেকেই সাইবার অপরাধের ফাঁদে পড়ছে প্রতিনিয়ত।

তাই একটু সর্তক আর কিছু বিষয় এড়িয়ে চললে সহজেই সাইবার অপরাধ থেকে রক্ষা পাওয়া সম্ভব। চলুন এ বিষয়গুলো জেনে নেওয়া যাক।

এ প্রসঙ্গে সাইবার ক্রাইম এসোসিয়েশন ফাউন্ডেশন-এর পেইজে কিছু পরামর্শ দিয়ে বলা হয়েছে, নিয়মিত তথ্যপ্রযুক্তি বা সাইবার সচেতনতা বিষয়ক পড়াশোনা করা। অন্যের ডিভাইসে লগইন না করা। কঠিন পাসওয়ার্ড ও তথ্য সুরক্ষা (প্রাইভেসি) নীতিমালা মেনে চলা। মাসে অন্তত ১০ জনের সঙ্গে সাইবার সচেতনতা বিষয়ে আলোচনা করা।

আরও বলা হয়েছে, যাচাই এবং শতভাগ সত্যতা ছাড়া কোনো কনটেন্ট কোথাও বা কারও সঙ্গে শেয়ার না করা।

ব্যবহৃত সফটওয়্যার নিয়মিত আপডেট করা। সমাজের জন্য ক্ষতিকর কোনো কনটেন্ট পাওয়া মাত্র রিপোর্ট করা। অপরিচিত কিংবা ঝুঁকিপূর্ণ ওয়েব লিংকে ক্লিক না করা। পাবলিক ওয়াইফাই ব্যবহারে সতর্ক থাকা। কাউকে আহত করে অনলাইনে পোস্ট, মন্তব্যসহ যেকোনো কার্যক্রম থেকে বিরত থাকা। সাইবার সচেতনতা বিষয়ে অন্যদের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে আলোচনা করা।

গুগলে যা সার্চ করলে মহাবিপদ হতে পারে।

রাহবার প্রযুক্তি ডেস্কঃ বর্তমান যুগ ইন্টারনেটের যুগ। ইন্টারনেটের মাধ্যমে আমাদের অনেক কাজ সহজ হয়ে গেছে। আপনার কোনো বিষয় ভালোভাবে জানা প্রয়োজন কিন্তু সে বিষয়ে আপনার ধারণা নেই। গুগল সার্চ করে চাইলেই সে বিষয়ে আপনি সহজে যথেষ্ট ধারণা নিতে পারবেন। কিন্তু আপনি না বুঝে গুগলে এমন কোন কিছু সার্চ করলেন যার মাধ্যমে আপনার বড় ধরনের ক্ষতি হতে পারে।

আসুন দেখে নেই যাক গুগলে কি কি সার্চ করা উচিত না:

🌏 সঠিক ঠিকানা না জেনে ব্যাংক এর নাম লিখে অনলাইন ব্যাংকিংয়ের জন্য ওয়েব সাইট সার্চ করবেন না। আপনি যে ব্যাংক এ লেনদেন করেন তাদের অনলাইন ঠিকানা জেনে রাখা উচিত। ব্যাংক এর ওয়েবসাইটের মত করে হুবহু অনেক ‘ফিশিং সাইট’ও রয়েছে। তাই জানা না থাকলে ভুল করে এই সাইটে ঢুকে আপনার গোপন ব্যাংক অ্যাকাউন্টের আইডি-পাসওয়ার্ড দিয়ে লগিন করার চেষ্টা করলেই বিপদ নিশ্চিত।

🌏 লাইসেন্সের আবেদন বা অনলাইনে সরকারি ডেথ সার্টিফিকেট খুঁজতেও গুগলে সার্চ করবেন না। গুগল সার্চে পাওয়া অনেক ওয়েবসাইট যথাযথ মনে হলেও তা থেকে প্রতারণার শিকার হতে পারেন।

🌏 গুগলে কখনও কোনো সংস্থার কাস্টমার কেয়ার নম্বর সার্চ করাও উচিত নয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রেই ভুল নম্বর থাকে এখানে। বহু ক্ষেত্রে এইসব নম্বরে ফোন করলে আপনার মারাত্মক বিপদ হতে পারে। বরং নির্দিষ্ট সাইটের ‘কন্ট্যাক্টে’ গিয়ে কাস্টমার কেয়ারের নম্বর সংগ্রহ করুন। অনলাইনে অনেক ভুয়া নাম্বারও থাকে। সেইসব নাম্বারে ফোন করে আপনি প্রতারিত হতে পারেন।

🌏 কোন রোগের জন্য কী ওষুধ এসব জানার জন্য গুগলকে ভরসা করা মারাত্মক ভুল। মনে রাখবেন, সবসময় রোগের কী লক্ষণ সে বিষয়ে সঠিক সমাধান দিতে পারে একজম বিশেষজ্ঞ ডাক্তার । রোগির বয়স, রোগের লক্ষন, মাত্রা ইত্যাদি সার্বিক বিষয়ে ডাক্তার বুঝে শুনে অসুধ দিবে।

🌏 বিনিয়োগ করলেই খুব শিগগিরই বড়লোক হয়ে যাবেন আপনি, এরকম পার্সোনাল ফাইন্যান্স ও স্টক মার্কেটের কথা গুগলের কাছে ভুলেও জানতে চাইবেন না।

🌏 প্রতারক চক্র আপনার গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে। চাকচিক্য  সুবিধার সঙ্গে অ্যান্টি ভাইরাসের বিজ্ঞাপন দেখে সেটি ডাউনলোড করা নিরাপদ নয়। অধিকাংশ ক্ষেত্রে আপনার অজান্তেই ডিভাইসে ঢুকে পড়বে বিপদজনক ভাইরাস।

Tagged , ,

মেসেঞ্জারে নতুন যেসব সুবিধা

রাহবার: ফেসবুক মালিকানাধীন মেসেজিং প্ল্যাটফরম মেসেঞ্জারে নতুন কয়েকটি প্রাইভেসি সুবিধা যুক্ত করা হয়েছে, যার মাধ্যমে ব্যবহারকারীরা পাঠানো বার্তা নিয়ন্ত্রণের সুবিধা পাবেন। এ ছাড়া মেসেঞ্জার অ্যাপে নতুন সেটিংস পরীক্ষা চালাবে ফেসবুক। এতে মেসেঞ্জারে পছন্দ অনুযায়ী কল ও বার্তা আসার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারবেন ব্যবহারকারী। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ইনস্টাগ্রামে বর্তমানে চালু থাকা ফিচারের মতোই ফেসবুকে নতুন ফিচার মেসেঞ্জারে আনা হবে। ডিসেম্বর নাগাদ মেসেঞ্জারে আরও বেশি নিয়ন্ত্রণ থাকবে ব্যবহারকারীর হাতে।

ফেসবুকে বন্ধু নয়, এমন কেউ মেসেঞ্জারে কোনো ছবি পাঠালে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ঝাপসা করে দেবে ফেসবুক। এতে অনাকাক্সিক্ষত ব্যক্তির কাছ থেকে ফেসবুকে ছবি বা বার্তা পাঠিয়ে বিব্রত করা বন্ধ হবে। ফেসবুকের পক্ষ থেকে ‘অ্যাপ লক’ ফিচারটিও আনুষ্ঠানিকভাবে উন্মুক্ত করা হচ্ছে। এতে মেসেঞ্জার চ্যাটে বাড়তি আরেক স্তরের নিরাপত্তা যুক্ত হবে। এ পদ্ধতিতে মেসেঞ্জার চ্যাট লক করে রাখা যাবে। মেসেঞ্জারে ঢুকতে হলে ফেস বা ফিঙ্গারপ্রিন্ট দিয়ে ঢুকতে হবে। এ ফিচারটি এরই মধ্যে আইওএস প্ল্যাটফরমে চালু হয়েছে। শিগগির অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফরমেও এ সুবিধা যুক্ত হবে।

কখন পোস্ট করলে বেশি ‘লাইক’ পাবেন?

রাহবার: ‘কিরে ফেসবুক সেলিব্রেটি, যা পোস্ট দিস তাতেই লাইকের বন্যা’-এমন কথা বন্ধুদের আড্ডায় একজন আরেক জনকে বলতে শোনা যায়। কারও কারও আবার লাইকের গৌরবে মাটিতে পা পড়ে না!

কিন্তু ভালো পোস্ট দিয়েও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লাইক পাওয়া যায় না, এমন কথাটি অনেকাংশে সত্যি। আবার গুরুত্বহীন কিংবা একেবারেই ফালতু পোস্টে লাইক দিতে মানুষ হুমড়ি খেয়ে পড়ে।

লাইক না পাওয়া একজন আরেকজনকে প্রশ্নও করে থাকেন- ‘কি? একটা ভালো পোস্ট দিলাম লাইকও দিলা না।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে পোস্টে লাইক পেয়ে খুশি হতে চান অনেকেই।

তাদের জন্য টোটকার উপায় বাতলে দিয়েছে বাস্টল ডটকম। প্রতিষ্ঠানটি চার মাস ধরে ১৪ কোটির বেশি পোস্টের শত কোটি লাইক বিশ্লেষণ করে একটি গবেষণা প্রতিবেদন তৈরি করেছে।

ওই প্রতিবেদন অনুসারে, সবচেয়ে বেশি লাইক পাওয়া যায় সপ্তাহের কাজের দিনেগুলোতে- সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টার মধ্যে কোনো কিছু পোস্ট করলে। মাঝে দুই ঘণ্টার লাইকের স্রোতে ভাটা থাকে বলা যায়। এরপরে আবার সন্ধ্যা ৭টা থেকে ৮টার মধ্যে পোস্ট দিলে আপনি লাইকের জোয়ার ধরতে পারবেন।

কিন্তু ছুটির দিনগুলোতে মানুষ ব্যক্তিগত কাজের পাশাপাশি খুব একটা নিয়মমাফিক জীবন যাপন করে বলে ওই দিনগুলোতে লাইকের সংখ্যাও উল্লেখযোগ হারে কম হয়। সে ক্ষেত্রে বেশিরভাগ মানুষের অবসরের দিনগুলো পোস্ট করলে লাইকের হারও বেড়ে যাবে।

করোনা আক্রান্ত ব্যক্তির কাছাকাছি এলেই সংকেত দেবে স্মার্টফোন

রাহবার: করোনাভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এলেই সতর্ক করবে স্মার্টফোন। এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে এই অ্যাপ চালু করতে যাচ্ছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি (আইসিটি) বিভাগ।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, নাগরিকদের সুরক্ষায় কন্টাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ নিয়ে আমরা বেশ কিছু দিন ধরেই কাজ করছিলাম। অবশেষে আমরা এটি চালু করতে পেরেছি।

স্মার্টফোনে কন্টাক্ট ট্রেসিং অ্যাপ ডাউনলোড করার পর লোকেশন এবং ব্লুটুথ অন রেখে বাড়ির বাইরে বের হলে, এটি এক-দুই মিটারের মধ্যে যারা থাকবে তাদের হিস্ট্রিগুলো আমাদের ডাটাবেইসে পাঠাবে। কেউ যদি আক্রান্তের কাছাকাছি চলে যায় তাহলে স্মার্টফোনের অ্যালার্ট বেজে উঠবে। তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিরা যদি কয়েক দিন পরও করোনা পজিটিভ হয়, তাহলেও স্মার্টফোন থেকে সতর্কবার্তা পাওয়া যাবে। সে ক্ষেত্রে ফোন করে প্রয়োজনীয় পরামর্শও দেওয়া হবে।

লকডাউনে মোবাইল-ল্যাপটপে দৃষ্টি সারাক্ষণ, যেভাবে রক্ষা করবেন চোখ

রাহবার: ঘরবন্দি সময়ে একটানা মোবাইল, ল্যাপটপ দেখতে দেখতে চোখের দৃষ্টি ঝাপসা। ভালো করে দেখতেই পাচ্ছেন না! অনেকের এরই সঙ্গে চোখে জ্বালা, ব্যথা, কড়কড়ানি ভাব। যেন ধুলোবালি ঢুকেছে চোখে। চোখ ফুলে লাল। জলও গড়াচ্ছে। জল শুকিয়ে যাচ্ছে চোখের। যে উপায়ে এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে পারেন আসুন জেনে নেই।

১. কাজের ফাঁকে ছুটি নিন
প্রতি ১৫-২০ মিনিট অন্তর স্ক্রিন থেকে বিরতি নিন। কয়েক সেকেন্ড চোখ বন্ধ করে রাখুন। আপনার চোখের চারপাশের পেশীগুলি মাসাজ করুন। দুই ঘন্টার মধ্যে চোখে জলের ঝাপটা দিন। কিন্তু কখনোই হাত দিয়ে চোখ ঘষবেন না। চোখ শুকনো লাগলে চিকিৎসকের পরামর্শ মেনে আই ড্রপ ব্যবহার করতে পারেন।

২. নির্দিষ্ট সময় অনলাইন থাকুন
চেষ্টা করুন হাতের কিছু কাজ শিখতে। তাহলে কম সময় অনলাইনে থাকবেন। বাকিটা সময় হাতের কাজ তৈরিতে কাটবে। আপনার চোখ কম ক্ষতিগ্রস্ত হবে।

৩. পরিবারের সঙ্গে সময় কাটান
পরিবারের সঙ্গে সময় কাটানো মানেই মোবাইল বা ল্যাপটপে কম সময় খরচ করা। তাই অবসরে পরিবারের সঙ্গে আড্ডা মারুন। চোখ থাকবে সতেজ।

৪. পুষ্টিকর খাবার খান
বাদাম, আখরোট, মাছ এবং সাইট্রাস ফল ডায়েটে রাখুন। এগুলি পুষ্টি বাড়ায়। চোখ ভালো রাখে। কিছু খাবার আপনার চোখের জন্য ভাল। ওবেসিটি, টাইপ ২ ডায়াবেটিস কমায়। মাছের মধ্যে থাকা মেগা ৩ ফ্যাটি অ্যাসিড অন্ধত্ব দূর করে।

৫. আলোর তলায় বসে কাজ করুন
অন্ধকারে বসে মোবাইল বা ল্যাপটপ দেখবেন না। এতে চোখ বেশি করে খারাপ হবে। উজ্জ্বল আলোর নীচে বসে কাজ করুন বা অনলাইনে থাকুন। সমস্যা কম হবে।

সূত্র: এনডিটিভি

হোয়াটসঅ্যাপ-ইনস্টাগ্রাম-ম্যাজেঞ্জারকে একীভূত করতে ফেসবুকের উদ্দ্যেগ

প্রযুক্তি জায়ান্ট ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ, ইনস্টাগ্রাম ও ম্যাজেঞ্জার নিয়ে একক ম্যাসেজিং সিস্টেম চালু করার উদ্দ্যেগ নিতে যাচ্ছে। আগামী বছরের শুরুর দিকে এই সিস্টেম চালু করার কথা ভাবছে ফেসবুক।

এর ফলে বিশ্বব্যাপী যে কোটি কোটি ইউজার ফেসবুকের অ্যাপসগুলো ব্যবহার করছেন তারা আরো উন্নতমানের ম্যাসেজিং সেবা পাবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

মার্কিন গণমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমসের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ গণমাধ্যম ইন্ডিপেন্ডেন্ট এক প্রতিবেদনে এ খবর দিয়েছে।

তবে উল্লিখিত অ্যাপসগুলো আলাদাভাবে আগের মতোই কার্যকর থাকবে। শুধু ম্যাজেসিং সিস্টেমটা সমন্বিত হবে। বিষয়টি সম্পর্কে যারা অবহিত তারা এমনটাই জানিয়েছেন বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

ফেসবুকের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, এই একীভূতকরণের ফলে ইউজাররা একটি দ্রুত, সহজ, নির্ভরযোগ্য ও ব্যক্তিগত ম্যাসেজিং সিস্টেম পাবেন। যার ফলে ইউজারদের তথ্যের নিরাপত্তা আগের চেয়ে বাড়বে।

তবে তথ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর ফলে মানুষের গোপনীয়তার ওপর প্রভাব পড়বে।

তিনি বলেন, ‘সর্বোচ্চ গোপনীয়তা বজায় রেখে আমরা আমাদের মেসেজিং সিস্টেমকে পুরো নেটওয়ার্কের সঙ্গে যুক্ত বন্ধু ও ফ্যামেলির কাছে সহজে পৌঁছে দেওয়ার কাজ করছি।’

যদিও এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে বিস্তারিত কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি, তবে আগামী বছরের শুরুর দিকে এই একীভূতকরণ হতে পারে।

তবে ম্যাসেজিং অ্যাপসগুলোর এই একীভূতকরণ ফেসবুক সিইও মার্ক জাকারবার্গের বক্তব্যের বিপরীত। কারণ তিনি বলেছিলেন, ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপ সামাজিক মাধ্যমে আলাদা আলদাভাবে পরিচালিত হবে।

Tagged

তিন দিনব্যাপী স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা শুরু হচ্ছে আজ

রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) আজ বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হচ্ছে তিন দিনের স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলা। আয়োজক প্রতিষ্ঠান এক্সপো মেকারের আয়োজনে ১১তম স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলায় নানা ছাড় ও উপহার ঘোষণা করেছে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান।

মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত সবার জন্য উন্মুক্ত থাকবে। মেলায় প্রবেশ ফি ২০ টাকা। শিক্ষার্থীরা আইডি কার্ড দেখিয়ে বিনা মূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন।

মেলার আয়োজক সূত্রে জানা গেছে, মেলায় বিশ্বখ্যাত সব ব্র্যান্ডের স্মার্টফোন, ট্যাবলেট ও এক্সেসরিজ পাওয়া যাবে। মেলায় বেশ কিছু নতুন মডেলের স্মার্টফোন উন্মোচন করা হবে। হুয়াওয়ে, স্যামসাং, টেকনো, ভিভো, উই, গোল্ডেনফিল্ড, মটোরোলা, নকিয়া, আইফোন, ইউসিসি, আইটেল, ইনফিনিক্স, ইউমিডিজি, ডিটেল, এডিএ, ম্যাক্সিমাস, ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান প্রিয়শপ ডটকমসহ বিভিন্ন ব্র্যান্ড ও প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে মেলায়। ব্র্যান্ডগুলোর নানা ধরনের অফার দিচ্ছে। মূল্যছাড়ের পাশাপাশি গিফট বক্স, র‍্যাফেল ড্র ও প্রতিযোগিতার আয়োজন থাকছে।

মেলায় টেকনোর প্রতিটি মডেলের ওপর থাকছে সর্বোচ্চ ১২ শতাংশ আর আইটেলে ১০ শতাংশ ছাড়ের ঘোষণা দিয়েছে। এ ছাড়া প্রতিটি মডেলের সঙ্গে বিশেষ উপহারের ঘোষণাও দিয়েছে। এ ছাড়া মেলায় ইউমিডিজি, স্যামসাং, হুয়াওয়ে, উই ব্র্যান্ডের পক্ষ থেকে বিশেষ অফারের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

আজ বিকেলে মেলা উদ্বোধন করবেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার ও প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ।

Tagged

রাবেয়া-রোকাইয়াকে রাতেই নেওয়া হচ্ছে হাঙ্গেরি

জোড়া মাথার শিশু রাবেয়া ও রোকাইয়াকে উন্নত চিকিৎসার জন্য শুক্রবার (৪ জানুয়ারি) রাতের ফ্লাইটে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে হাঙ্গেরি। শুক্রবার দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে স্বাস্থ্যমন্ত্রী মো. নাসিম সংবাদ সম্মেলনে রাবেয়া-রোকাইয়ার বাবা-মার হাতে স্বপরিবারে হাঙ্গেরি যাওয়ার বিমানের টিকেট তুলে দেন। শিশু দুটির সঙ্গে বার্ন ইউনিটের সহযোগী অধ্যাপক ডা. হোসাইন ইমাম ইমুও হাঙ্গেরি যাবেন।

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতেই বার্ন ইউনিটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন বলেন, ‘এক বছর ধরে মাথা জোড়া লাগানো শিশু দুটি বার্ন ইউনিটে চিকিৎসা নিচ্ছে। এর মধ্যে জার্মান ও হাঙ্গেরির দুই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক শিশু দুটিকে দেখেন। তারা হাসপাতালে দুই দফায় মাথায় এনজিওগ্রামের মাধ্যমে তাদের ব্রেইনের প্রধান রক্তনালী আলাদা করেন। এরপর তারা শিশু দুটিকে হাঙ্গেরিতে নিয়ে যৌথ চিকিৎসা করাতে আগ্রহ প্রকাশ করেন।’ তিনি জানান, হাঙ্গেরিতে শিশু দুটির চিকিৎসা তত্ত্বাবধান করবে জার্মানভিত্তিক ‘ফর বাংলাদেশ অর্গানাইজেশন’ নামের একটি সংগঠন।

পাবনার চাটমোহর উপজেলার মূলগ্রাম ইউনিয়নের আটলংকা গ্রামের স্কুলশিক্ষক রফিকুল ইসলাম ও তাসলিমা দম্পতির ঘরে জন্মগত ত্রুটি নিয়ে জন্ম নেয় যমজ রাবেয়া ও রোকাইয়া। ২০১৬ সালের ১৬ জুন অপারেশনের মাধ্যমে জন্ম হয় তাদের। অপারেশনের মাধ্যমে শিশু দুটিকে আলাদা করা ব্যয়বহুল ও ঝুঁকিপূর্ণ। গত ২০ নভেম্বর ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করানো হয় এই দুই শিশুকে।

Tagged