রাহবার: যুক্তরাষ্ট্রে পুলিশ কর্তৃক কৃষ্ণাঙ্গ নাগরিক জর্জ ফ্লয়েড নিহত হওয়ার পরই বিক্ষোভে উত্তাল হয়ে উঠে পুরো দেশ। সেই অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তার বিচারের দাবিতে মাঠে নামে সাধারণ নাগরিকরা। আর সেই বিক্ষোভ সহসাই রুপ নেয় সহিংস আন্দোলনে।

এরইমধ্যে শুক্রবার রাতে হোয়াইট হাউসের দিকে রওয়ানা হয় বিক্ষোভকারীদের একটি অংশ। খবর সিএনএন’র।

বিক্ষোভকারীরা হোয়াইট হাউজের দিকে যেতে থাকলে তাদের মাঝপথে আটকে দেয়ার চেষ্টা করেন পুলিশ ও ন্যাশনাল সিক্রেট সার্ভিসের সদস্যরা।

কিন্তু বাধা উপেক্ষা করে বিক্ষোভকারীরা হোয়াইট হাউজের দিকে যেতে থাকলে দ্রুতই প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে মাটির নিচের সুরক্ষিত বাঙ্কারে লুকিয়ে ফেলেন হোয়াইট হাউজের নিরাপত্তারক্ষীরা। প্রায় ঘণ্টাখানেক পর মাটির নিচের বাঙ্কার থেকে উঠার সময়ও বেশ আতঙ্কে ছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

এদিকে চলমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় দেশটির রাজ্যগুলোতে নেয়া হয়েছে ব্যাপক সতর্ক ব্যবস্থা। অন্যদেক পরিস্থিতির উন্নতি না হলে সেনা মোতায়নের হুমকিও দেন ট্রাম্প।

উল্লেখ্য, গত সোমবার (২৫ মে) হ্যান্ডকাফ পরা জর্জ ফ্লয়েড নামের ওই কৃষ্ণাঙ্গ ব্যক্তিকে হত্যার দায়ে অভিযুক্ত ডেরেক শভিন নামে ওই পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতারের পর কারাগারে পাঠানো হয়েছে। সেইসাথে এ ঘটনায় সংশ্লিষ্ট চার পুলিশ সদস্যকে তৎক্ষণাই বরখাস্ত করা হয়।