Category Archives: অর্থনীতি

কওমি উদ্যোক্তা সম্মেলন ২০২০: উদ্যোক্তাদের মিলনমেলা

 রাহবার ডেস্ক: ফেসবুক ভিত্তিক কওমি আলেমদের প্রথম ও বৃহৎ উদ্যোক্তা প্ল্যাটফর্ম ‘কওমি উদ্যোক্তা’ সম্প্রতি ১ লাখ সদস্য অতিক্রম করেছে। ঐতিহাসিক এই মুহূর্তকে স্মরণীয় করে রাখতে বৃহস্পতিবার ২৪ ডিসেম্বর বিকাল ৩টায় রাজধানীর মতিঝিলে অবস্থিত হোটেল রাহমানিয়া ইন্টারন্যাশনালে আয়োজন করা হয় দেশের খ্যাতিমান আলেম, মোটিভেশনাল স্পিকার এবং সফল উদ্যোক্তাদের উপস্থিতিতে উদ্যোক্তা সম্মেলন।

উক্ত সম্মেলনে অন্যান্যদের মাঝে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তাক্বওয়া ফাউন্ডেশন এর চেয়ারম্যান মাওলানা গাজী ইয়াকুব, ড. মোশাররফ মাহবুব, সাংবাদিক শরীফ মোহাম্মদ, লেখক উবাইদুর রহমান খান নদভী, মাওলানা আহমাদুল্লাহ, রকমারি.কম এর প্রতিষ্ঠাতা মাহমুদুল হাসান সোহাগ, লেখক গবেষক মাওলানা সাইমুম সাদী, ইন্জিনিয়ার ইব্রাহীম খলিল প্রমুখ। আমন্ত্রিত অতিথিগণ তরুণ উদ্যোক্তাদের ব্যবসা-বাণিজ্য ও আত্মোন্নয়নে নানারকম দিক-নির্দেশনা মুলক বক্তব্য দেন।

উল্লেখ্য যে, চলতি বছরের ২ জুন করোনাকালীন সময়ে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির লক্ষ্যে এ প্ল্যাটফর্মের যাত্রা শুরু হয়। শুরু থেকেই গ্রুপটিতে ব্যাপক সাড়া মেলে। মাত্র ১৭২ দিনে এক লাখ সদস্য অতিক্রম করে গ্রুপটি। এখান থেকে নতুন নতুন উদ্যোগ শুরু করে সাবলম্বী হওয়ার পথে রয়েছেন অসংখ্য আলেম ও মাদরাসা শিক্ষার্থী।

গ্রুপের এডমিন আলেম, লেখক ও উদ্যোক্তা মাওলানা রোকন রাইয়ান জানিয়েছেন, হালাল উপার্জন বৃদ্ধি করতে আমাদের কওমি উদ্যোক্তার যাত্রা। আলহামদুলিল্লাহ, অল্পসময়ে ব্যাপক সাড়া পেয়ে আমরা আপ্লুত। অসংখ্য তরুণ আলেম এখন স্বপ্ন দেখছেন নিজে উদ্যোক্তা হওয়ার পাশাপাশি অন্যকে চাকরি দিয়ে সহযোগিতা করার। ইনশাআল্লাহ, আমরা হালাল উপার্জন বৃদ্ধি করতে এ প্ল্যাটফর্মকে ব্যাপকভাবে কাজে লাগাতে পারবো বলে আশাবাদী।

গরীব মানুষকে বেশি ত্রাণ দেয়ায় আলু ও চালের দাম বেড়েছে: কৃষিমন্ত্রী

রাহবার ডেস্ক: করোনা দুর্যোগে গরীব মানুষকে বেশি করে ত্রাণ দেয়ার কারণে আলু ও চালের দাম বেড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক।

রোববার (১১ অক্টোবর) দুপুরে সচিবালয়ে চট্টগ্রামের আনোয়ারার হাউড্রোলিক এলিভেটর ড্যামের ভার্চুয়াল উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মন্ত্রী সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ মন্তব্য করেন।

অনুষ্ঠানে মন্ত্রী বলেন, এখন গরীব মানুষ নেই বললেই চলে, ত্রাণের চাল নিয়ে গবাদিপশুকে খাওয়াচ্ছে মানুষ। চট্টগ্রামের আনোয়ারা উপজেলায় বরুমচড়াতে ২১ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি অত্যাধুনিক হাউড্রোলিক এলিভেটর ড্যাম পাইলট প্রকল্প হিসাবে নির্মাণ করা হয়েছে। চীনের তৈরি এই ড্যাম তিন হাজার হেক্টর জমির ফসল রক্ষা করবে।

সচিবালয় থেকে সেই প্রকল্পের ভার্চুয়াল উদ্বোধন করেন কৃষিমন্ত্রী। উপস্থিত ছিলেন স্থানীয় সাংসদ ও ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। অনুষ্ঠানে কৃষিমন্ত্রী জানান, কেনো বাড়লো আলু, চালসহ সবজির দাম। করোনাকালে ত্রাণ নিয়ে মানুষ গবাদিপশুর খাদ্য হিসাবে ব্যবহার করেছে বলেও দাবি করেন মন্ত্রী।

অবশ্য মন্ত্রী স্বীকার করেন বাজারদর বৃদ্ধিতে মধ্যস্বত্বভোগীরা কারসাজি করে। এদের দৌরাত্ম্য কমানো উচিত।

১০ শতাংশ কর দিলেই কালো টাকা হয়ে যাবে সাদা

রাহবার: আগামী অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেটে ঢালাওভাবে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেয়া হয়েছে। বৃহস্পতিবার বেলা ৩টা থেকে জাতীয় সংসদে ২০২০-২১ অর্থবছরের বাজেট পেশ করছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বাজেট বক্তৃতায় বলা হয়েছে, দেশের প্রচলিত আইনে যাই থাকুক না কেন, ব্যক্তিশ্রেণির করদাতাদের চলতি অর্থবছরের ১ জুলাই থেকে ২০২১ সালের ৩০ জুন পর্যন্ত আয়কর রিটার্নে অপ্রদর্শিত জমি, বিল্ডিং, ফ্ল্যাট ও অ্যাপার্টমেন্টের প্রতি বর্গমিটারের ওপর নির্দিষ্ট হারে এবং নগদ অর্থ, ব্যাংকে গচ্ছিত অর্থ, সঞ্চয়পত্র, শেয়ার, বন্ড বা যেকোনো সিকিউরিটিজের ওপর ১০ শতাংশ কর প্রদান করে আয়কর রিটার্নে প্রদর্শন করলে আয়কর কর্তৃপক্ষসহ অন্য কোনো কর্তৃপক্ষ এই ব্যাপারে প্রশ্ন করতে পারবে না।

এছাড়া একই সময় ব্যক্তিশ্রেণির করদাতাগণ পুঁজিবাজারে অর্থ বিনিয়োগ করলে, ওই বিনিয়োগের ওপর ১০ শতাংশ কর প্রদান করলে, আয়করসহ কোনো কর্তৃপক্ষ প্রশ্ন করবে না।

২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৬৮ হাজার ১৯০ কোটি টাকার প্রস্তাবিত বাজেট জাতীয় সংসদে উপস্থাপন করেছেন অর্থমন্ত্রী। এটি দেশের ৪৯তম আর অর্থমন্ত্রী হিসেবে মুস্তফা কামালের দ্বিতীয় বাজেট।

করোনা মহামারীর বাস্তবতায় দাঁড়িয়ে মানুষের জীবন ও জীবিকা রক্ষার চ্যালেঞ্জ সামনে নিয়ে নতুন অর্থবছরের প্রস্তাবিত এই ব্যয় বিদায়ী অর্থবছরের সংশোধিত বাজেটের চেয়ে ১৩ দশমিক ২৪ শতাংশ বেশি। টাকার ওই অংক বাংলাদেশের মোট জিডিপির ১৭ দশমিক ৯ শতাংশের সমান।

বিদায়ী অর্থবছরে বাজেটের আকার ছিল ২০১৮-১৯ অর্থবছরে সংশোধিত বাজেটের ১৮ শতাংশ বেশি এবং জিডিপির ১৮ দশমিক ৩ শতাংশের সমান।

বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরি : ফিলিপাইনের সাবেক ব্যাংক ব্যবস্থাপকের সাজা

বছর তিনেক আগে বিশ্বকে কাঁপিয়ে দেয়া বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ চুরির ঘটনায় সংশ্লিষ্ট অর্থপাচারে দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন ফিলিপাইনের আরসিবিসি ব্যাংকের সাবেক শাখা ব্যবস্থাপক ম্যাইয়া সান্তোস ডিগুইটো। বৃহস্পতিবার দেশটির অর্থনৈতিক কেন্দ্র মেকাটি শহরের একটি আদালত এ রায় দিয়েছেন।

২০১৬ সালে বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের অর্থ চুরির ঘটনায় এই প্রথমবারের মতো কাউকে দোষী সাব্যস্ত করা হয়েছে।

ফিলিপাইনের ঋণদাতা প্রতিষ্ঠান রিজাল কমার্শিয়াল ব্যাংকের একটি শাখার সাবেক ব্যবস্থাপক ডিগুইটো অর্থপাচারের আটটি অভিযোগে মেকাটি আঞ্চলিক বিচার আদালতে দোষী সাব্যস্ত হন।

প্রতিটি অভিযোগের বিপরীতে তার চার থেকে সাত বছরের কারাদণ্ড ভোগ করতে হবে। এ ছাড়া ১১ কোটি ডলার জরিমানা করা হয়েছে তাকে।

চারটি অজ্ঞাত ও কাল্পনিক ব্যাংক হিসাব থেকে অর্থ উত্তোলনে ও জমা দেয়ার ক্ষেত্রে সহায়তা করার অপরাধে ডিগুইটো দায়ী বলে জানিয়েছেন আদালত।

তবে ২০১৬ সালের সিনেটের তদন্তের শুনানিতে ডিগুইটো বলেন, তাকে বলির পাঁঠা বানানো হয়েছে। আরসিবিসি ব্যাংকের সর্বোচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের অংশগ্রহণ হলেই কেবল অর্থপাচার করা সম্ভব।

ডিগুইটোর আইনজীবী দিমেট্রিও কাস্টোডিও বলেন, তার মক্কেল রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করবেন। সুপ্রিমকোর্টের চূড়ান্ত রায় স্থগিত করে তিনি মুক্তই থাকবেন।

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, এ মামলা দীর্ঘ প্রক্রিয়ার ভেতর দিয়ে যাবে। ডিগুইটোর জন্য এটি একেবারে সাময়িক বিপত্তি।

এ রায়ের পর ফিলিপাইনে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসাদ আলম সিয়াম বলেন, আরসিবিসি ব্যাংকের আরও ছয় কর্মকর্তা রয়েছেন, তাদের মামলা দেশটির অ্যান্টি মানিলন্ডারিং কাউন্সিলের মাধ্যমে বিচার মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। আমরা আশা করি, যা বিচারকার্যকে আরও সহজ করে দেবে।

২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ ব্যাংক অব নিউইয়র্কে (ফেড) রক্ষিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ১০ কোটি ১০ লাখ ডলার চুরি হয়।

পাঁচটি সুইফট বার্তার মাধ্যমে চুরি হওয়া এ অর্থের মধ্যে শ্রীলংকায় যাওয়া দুই কোটি ডলার ফেরত আসে। তবে ফিলিপাইনে যাওয়া আট কোটি ১০ লাখ ডলার জুয়ার টেবিল ঘুরে হাতবদল হয়। এই অর্থ চুরিতে দেশের ভেতরের কোনো একটি চক্রের হাত থাকতে পারে বলে সন্দেহ করা হয়।

খোয়া যাওয়া রিজার্ভের অর্থের দেড় কোটি ডলার ফেরত এলেও বাকি অর্থ উদ্ধারে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে তৎপরতা চালানো হলেও এখনও তেমন কোনো অগ্রগতি নেই।

(দৈনিক যুগান্তর)

Tagged , ,

আজ থেকে শুরু হচ্ছে ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা-২০১৯

আজ থেকে শুরু হচ্ছে ২৪তম ঢাকা আন্তর্জাতিক বাণিজ্যমেলা। রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে অস্থায়ী মাঠে বিকেল ৩টায় বাণিজ্যমেলার উদ্বোধন করবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। এ মেলা চলবে এক মাস অর্থাৎ আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত মেলা খোলা থাকবে। মেলায় প্রাপ্তবয়স্কদের প্রবেশের টিকিটের মূল্য ৩০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর অপ্রাপ্তবয়স্কদের টিকিটের মূল্য ২০ টাকা। এবারই প্রথম মেলাতে অনলাইনে টিকিট করার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

অনলাইনে টিকিট কাটবেন কীভাবে?
প্রথমে মোবাইল ফোন বা কম্পিউটার থেকে www.e-dift.com প্রবেশ করে নির্দিষ্ট তথ্য দিয়ে গ্রাহককে ৩টি ধাপ অতিক্রম করতে হবে। প্রথম ধাপে আপনার কয়টি টিকিট প্রয়োজন তা উল্লেখ করতে হবে। দ্বিতীয় ধাপে আপনার ঠিকানা দিতে হবে। যার মাধ্যমে আপনার নাম ও মোবাইল নম্বর উল্লেখ করতে হবে। এরপর তৃতীয় ধাপে টাকা পরিশোধ করতে হবে। এটা শেষ হলেই আপনার টিকিট কনফার্ম হয়ে যাবে।

দুইভাবে টাকা পরিশোধ করা যাবে। একটি হলো মোবাইল ব্যাংকিং বিকাশ; আরেকটি ডেবিট বা ক্রেডিট কার্ড। এছাড়া নির্দেশনা মোতাবেক গুগল প্লে-স্টোর থেকে E-DTIF অ্যাপ ডাউনলোড করেও সেখান থেকে টিকিট ক্রয় করা যাবে।

বাণিজ্য মেলায় অংশগ্রহণকারী বিভিন্ন দেশের মধ্যে রয়েছে-ভারত, পাকিস্তান, চীন, ব্রিটেন, দক্ষিণ কোরিয়া, মালয়েশিয়া, ইরান, থাইল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্র, তুরস্ক, সিঙ্গাপুর, ভুটান, নেপাল, মরিশাস, ভিয়েতনাম, মালদ্বীপ, রাশিয়া,আমেরিকা, জার্মানি, সোয়াজিল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও হংকং।

Tagged , , ,

রাজধানীর বিমানবন্দর সড়ক অবরোধ করে আছে পোশাক শ্রমিকরা : বাসে অগ্নিসংযোগ

ন্যূনতম মজুরি বাস্তবায়নসহ বিভিন্ন দাবিতে রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে বিক্ষোভ করে পোশাক শ্রমিকরা। দ্বিতীয় দিনের মতো এই বিক্ষোভ আজ অবরোধে রূপ নেয় ।

দুপুরের দিকে তারা এনা পরিবহনের বাস ভাঙচুরের পর বাসে আগুন ধরিয়ে দেয়। বিক্ষুব্দ শ্রমিকরা ঢাকা-ময়মনসিংহ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করলে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়ে পথচারীরা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, অবরোধের একপর্যায়ে উত্তরা ৪ নম্বর সেক্টর ও দক্ষিণখানের পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। বর্তমানে আব্দুল্লাহপুর থেকে উত্তরা-বিমানবন্দর সড়কের দু’পাশ বন্ধ রয়েছে।

ছবি : ফোকাস বাংলা

 

Tagged , , ,