করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মৃতদেহ থেকে এখনো পর্যন্ত কোনো সংক্রমণ ছড়ায়নি। ফলে এদের দাফন কার্যক্রম পরিচালনায় যারা আছেন তাদের কোনো দুশ্চিন্তা নেই বলে জানিয়েছেন রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। গত ২৭ মার্চ সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে লাইভ ব্রিফিংয়ে এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি একথা জানান।

ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা বলেন, ‘সংক্রমণটা ছড়ানোর আশঙ্কা থাকে যখন রোগীকে গোসল করানো হয়। যারা এই কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত, তাদেরকে পিপিই দিয়ে সহযোগিতা করি। ফলে সেটা তাদের কাছ থেকে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকে না।’

তবুও দাফনকার্যের সঙ্গে যারা সম্পৃক্ত তাদের আশঙ্কা যাতে দূর হয় সে ব্যাপারে তিনি বলেন, ‘মৃত ব্যক্তিদের দেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করে আমরা পরীক্ষা করেছি এবং করছি। এখনো পর্যন্ত কোনো সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়েনি। ফলে এটা নিয়ে দুশ্চিন্তা বা উদ্বেগের কিছু নেই।’

করোনা আক্রান্ত মৃত ব্যক্তির দাফন জেলা প্রশাসক সিভিল সার্জনসহ অন্যান্য সংশ্লিষ্ট বিভাগ এবং ঢাকা সিটি করপোরেশনের সহযোগিতা রয়েছে বলেও জানান তিনি। আইইডিসিআর পরিচালক বলেন, ‘করোনা আক্রান্ত মৃত ব্যক্তির কাছ থেকে যদিও সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা থাকে। আমরা নিশ্চিত করছি, যাতে সংক্রমণ ছড়িয়ে না পড়ে।’

এছাড়াও দাফনের সময় সমস্ত ধর্মীয় নিয়ম মেনেই এ কার্যক্রম করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। করোনা রোগে মৃত ব্যক্তির দাফন বা সৎকারসংক্রান্ত বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) প্রটোকল অনুযায়ী সরকারি নির্দেশনা তৈরি করা হয়েছে। সে অনুযায়ী মৃতদেহ থেকে অতিরিক্ত ভাইরাসের সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া রোধে নির্দেশনাটিতে হাসপাতাল বা বাড়ি থেকে মৃতদেহ সংগ্রহ, পরিবহন, দাফনসহ প্রতিটি পর্যায়ের বিস্তারিত বর্ণনা দেওয়া হয়েছে। আর সে অনুযায়ী কাজ করছে আইইডিসিআর।