রাহবার ডেস্ক: হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম-মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক ও সৈয়দ মুহাম্মাদ ফয়জুল করীমসহ আলেম-ওলামাদের বিরুদ্ধে কটূক্তি ও দেশের বিভিন্ন স্থানে দ্বীনি মাহফিল বন্ধ ও ভাস্কর্য নির্মাণের প্রতিবাদ মিছিলে অংশগ্রহন করে গ্রেফতার হওয়া সদ্য কারামুক্তদের সংবর্ধণা দিয়েছে বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিস।

সোমবার (২৮শে ডিসেম্বর) বিকালে তারবিয়াতুল উম্মাহ মাদরাসা ঘাটারচর, কেরাণীগঞ্জে এই সংবর্ধণা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের যুগ্ম-মহাসচিব,বাংলাদেশ খেলাফত যুব মজলিসের কেন্দ্রীয় সভাপতি মাওলানা মুহাম্মাদ মামুনুল হক।

উল্লেখ্য, গত ২৭ নভেম্বর (শুক্রবার) জুমার নামাজের পর জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম থেকে শান্তিপূর্ণ মিছিল নিয়ে শান্তিনগরে গেলে পুলিশ বাধা দেয়। এ সময় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটলে পুলিশ সেখান থেকে ২০-২৫ জন ছাত্রকে আটক করে।

জানা যায়, গতকাল জুমার নামাজের পর বিভিন্ন মাদরাসা থেকে ছাত্ররা বায়তুল মোকাররমে জড়ো হয়। নামাজ শেষে তারা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। এ সময় দেশের বিভিন্ন স্থানে ভাস্কর্য নির্মাণের প্রতিবাদে স্লোগান দেয়। তারা মিছিল নিয়ে পল্টন মোড় হয়ে বিজয়নগর হয়ে শান্তিনগরে যায়। সেখানে পুলিশ বাধা দিলে সংঘর্ষ শুরু হয়।
শিক্ষার্থীরা জানায়, মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নামের একটি সংগঠন সম্প্রতি ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমির সৈয়দ ফয়জুল করীম এবং বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মামুনুল হককে নিয়ে আপত্তিকর মন্তব্য করেছে এবং তাদের কুশপুত্তলিকা দাহ করেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে বিভিন্ন মাদরাসার শিক্ষার্থীরা বায়তুল মোকাররমে বিক্ষোভ মিছিল করতে এসেছিলেন; কিন্তু পুলিশ তাদের বাধা দিয়েছে। এ সময় পুলিশ তাদের ২০-২৫ জনকে আটক করে।